লক্ষ্মীপুরে বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

লক্ষ্মীপুরে বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

লক্ষ্মীপুরে একাধিক শিশু ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে একটি বেসরকারি মাদ্রাসার পরিচালক শিক্ষক মোবারক হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ। একই সাথে ছয় ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগি এক ছাত্রের মা বাদী হয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানায় মোবারক হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।

আজ (মঙ্গলবার) বিকালে সদর উপজেলার হাজিরপাড়া ইউনিয়নের পশ্চিম কালিদাসেরবাগ এলাকা থেকে অভিযুক্তকে আটক করা হয়।

মোবারক হোসেন রায়পুর উপজেলার চর কাচিয়া গ্রামের শাহ আলমের ছেলে। তিনি সদর উপজেলার মুসলিমাবাদ তালীমুল কোরআন ইসলামী একাডেমীর পরিচালক।

স্থানীয়রা জানায়, স্থানীয় মসজিদে ইমামতি করতেন মোবারক হোসেন। ২০১৮ সালে পশ্চিম কালিদাসেরবাগ এলাকায়মুসলিমাবাদ তালীমুল কোরআন ইসলামী একাডেমী নামে একটি প্রাইভেট মাদ্রাসা চালু করেন। সেখানে ৩০ জন ছাত্র আবাসিকে থেকে পড়ালেখা করে আসছিল।

অভিযোগ রয়েছে, মোবারক হোসেন ওই মাদ্রাসার অন্তত শিশু ছাত্রকে একাধিকবার বলাৎকার করেছে। বিষয়টি গোপন রাখতে তিনি ছাত্রদের ভয়ভীতি দেখিয়ে শপথ করাতেন এবং মোবাইলফোনে ভিডিও ধারণ করে রাখেন। সম্প্রতি এক শিশুর পায়ুপথ দিয়ে রক্ত ঝরাকে কেন্দ্র করে ঘটনাটি জানাজানি হয়।

আজ মোবারক হোসেনকে মাদ্রাসার একটি ভবনে অবরুদ্ধ করে রাখে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসীম উদ্দীন ঘটনাস্থলে গিয়ে ছাত্রকে উদ্ধার করে। আটক করা হয় অভিযুক্ত মোবারক হোসেনকে। এ ঘটনায় স্থানীয় প্রশাসন মাদ্রাসাটি বন্ধ ঘোষণা করে ছাত্রদের বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছে।

এ ঘটনায় আটক মোবারক হোসেনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. মিমতানুর রহমান।

 

Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here