পুলিশ জানায়, মোস্তাফিজুর রহমান গত শনিবার বাড়ি থেকে ফেরার পথে শিমুলতলা এলাকায় বাস থেকে নেমে ছিনতাইকারীদের কবলে পড়েন। ছিনতাইকারীরা তাঁর বুকে ছুরি দিয়ে আঘাত করেন। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরদিন ভোরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক থেকে পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্র (সিআরপি) যাওয়ার পথে তাঁর লাশ পড়ে থাকতে দেখে লোকজন সাভার থানাকে জানায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সোহরওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়ে দেয়। পরে পরিবারের পক্ষ থেকে সাভার থানায় মামলা করা হয়।

ডগরমোড়া এলাকার লোকজন ও পুলিশের একাধিক কর্মকর্তা দাবি করেন, রনি এলাকার চিহ্নিত ছিনতাইকারী। তিনি শিমুলতলা ও ডগরমোরা এলাকায় ছিনতাইকারীদের নেতৃত্ব দেন। ছিনতাইয়ের অভিযোগে একাধিকবার গ্রেপ্তার হয়েছেন তিনি।

সাভার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, র‍্যাব আজাদ শরিফ ও রনিকে আজ সকালে সাভার থানায় হস্তান্তর করে। এরপর তাঁদের মোস্তাফিজুর রহমান হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে পাঠানো হয়।





Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here