সেতু

 

পদ্মা সেতুর ৩৬তম স্প্যান স্থাপন করা হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হলো সেতুর ৫ হাজার ৪০০ মিটার অংশ। সেতুতে বাকি রইলো আর পাঁচটি স্প্যান বসানোর কাজ।

আবহাওয়াসহ আনুষঙ্গিক খুঁটিনাটি অনুকূলে থাকায় এবং সার্বিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকায় শুক্রবার সকাল ৯ টা ৪২ মিনিটে স্প্যানটি মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে সেতুর ২ ও ৩ নং পিলারের উপর বসানো হয়।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, এর আগে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ভাসমান ক্রেন তিয়াইন-ই ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের স্প্যানটি নিয়ে নির্দিষ্ট পিলারের কাছে রাখে।

তিনি আরো জানান, ৩৭তম স্প্যানসহ সেতুতে বাকি থাকা পাঁচটি স্প্যান মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তেই বসানো হবে।

ইতিমধ্যেই জাজিরা প্রান্তে সবকটি স্প্যান বসানোর কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে। শুক্রবার ৩৬তম স্প্যানটি বসে গেলে আগামী ১১ নভেম্বর ৯ ও ১০ নং পিলারে ৩৭তম স্প্যান ‘২-সি’, ১৬ নভেম্বর ১ ও ২নং পিয়ারে ৩৮তম স্প্যান ‘১-এ’, ২৩ নভেম্বর ১০ ও ১১ নং পিয়ারে ৩৯ তম স্প্যান ‘২-ডি’, ২ ডিসেম্বর ১১ ও ১২ নং পিয়ারে ৪০ তম স্প্যান ‘২-ই’ও ১০ ডিসেম্বর ১২ ও ১৩ নম্বর পিয়ারে ৪১তম স্প্যান ‘২-এফ’ বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ সেতুর কাঠামো। নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর আগামী ২০২১ সালে পদ্মা সেতু খুলে দেয়ার কথা রয়েছে।

Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here