আমি সব সময় এই বিষয়গুলো খেয়াল রাখি

নাদিয়া আহমেদ। মডেল, নৃত্যশিল্পী ও অভিনেত্রী। একের পর এক ধারাবাহিক নাটকের কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। পাশাপাশি অভিনয় করছেন খন্ড নাটকেও। বর্তমান ব্যস্ততা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘হাতে বেশ কিছু ধারাবাহিক নাটকের কাজ আছে। এগুলো শুটিংই এখন করছি। এ তালিকায় আছে- আল হাজেনের ‘গোলমাল’, তুষার খানের ‘সংকটে সংকট’, ইমরান হাওলাদারের ‘ভিলেজ হট্টগোল’, সাজিন আহমেদ বাবুর ‘কর্পোরেট ভালোবাসা’, সোহাগ কাজীর ‘বৌ বিরোধ’, বিপ্লব হায়দারের ‘সুখ পাখি’সহ আরও কয়েকটি।’

অনেকেই ধারাবাহিক নাটক এড়িয়ে চলেন। কিন্তু আপনি হাঁটছেন উল্টো। কারণ কী? উত্তরে নাদিয়া বলেন, ‘সবাই যদি ধারাবাহিক এড়িয়ে চলে তাহলে এ ধরনের নাটক করবে কে? যারা অল্প সময়ে রাতারাতি তারকা হতে চান। তারাই ধারাবাহিক নাটকে কাজ এড়িয়ে চলেন। এ ধরনের নাটকে অভিনয় করলে চরিত্রের প্রতি যত্নবান হওয়া যায়। একটা চরিত্র নিয়ে দীর্ঘদিন কাজ করা যায়। এবার বিরতির পর কাজে ফিরেছি ধারাবাহিক দিয়েই। আমার মনে হয়, ধারাবাহিকের কাজের ব্যাপারে পরিচালকের প্রথম পছন্দ আমি। নির্মাতাদের প্রতি কৃতজ্ঞ, যে তারা আমার অভিনয়ে আস্থা রাখছেন।’

সম্প্রতি ওয়েব সিরিজেও কাজ শুরু করেছেন। সামনে আর কোন ওয়েব সিরিজে আপনাকে দেখা যাবে? জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘তানিম পারভেজের ওয়েব সিরিজ ‘ঘোলা’ দিয়ে কাজ শুরু করেছি। এটাই আমার প্রথম কাজ। নাটকের চেয়ে এখানে বাজেট ভালো। তাছাড়া ওয়েব সিরিজের গল্পে অনেক কিছুই দেখানো সম্ভব। তাই এর কাজও স্বাচ্ছন্দ্য নিয়ে করা যায়।’

সঙ্গে যোগ করে নাদিয়া আরও বলেন, ‘ওয়েবে কাজ শুরুর পর থেকে অনেকগুলো কাজের প্রস্তাব পেয়েছি। কিন্তু গল্প আর চরিত্র পছন্দ হয়নি বলে অভিনয় করা হয়নি। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে আমি সব সময় এই বিষয়গুলো খেয়াল রাখি। তাই মনের মতো গল্প না হলে কাজ করা হয় না।’

Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here